নিজেকে অসহায় মনে হচ্ছে? প্লিজ এড়িয়ে যাবেন না লেখাটা পড়ুন।

1
119

আমি হারবোনা
৪০ কোটি শুক্রাণুর সাথে যুদ্ধ করে জন্মেছি জীবন যুদ্ধে হতাশায় হেরে যেতে নয় 😊😊
বিজ্ঞান বলে একজন প্রাপ্ত বয়স্ক সুস্থ্য পুরুষ একবার সহবাস করলে যে পরিমান বীর্য নির্গত হয় তাতে ৪০ কোটি শুক্রাণু থাকে।
(মেয়েদের গর্ভে যদি সেই পরিমান স্থান পেতো তাহলে ৪০ কোটি বাচ্চা তৈরি হতো)
এই ৪০ কোটি শুক্রাণু, মায়ের জরায়ুর দিকে পাগলের মত ছুটতে থাকে, জীবিত থাকে মাত্র ৩০০-৫০০ শুক্রাণু।
আর বাকিরা এই “ছুটে চঁলার” পঁথে ক্লান্ত অথবা পরাজিত হয়ে মারা যায়।এই ৩০০-৫০০ শুক্রাণু যেগুলো ডিম্বানুর কাছে যেতে পেরেছে।তাদের মধ্যে মাত্র একটি মহা শক্তিশালী শুক্রাণু ডিম্বানুকে ফার্টিলাইজ করে, অথবা ডিম্বানুতে আসন গ্রহন করে।সেই ভাগ্যবান শুক্রাণু টি হচ্ছেন আপনি কিংবা আমি-অথবা আমরা সবাই।
কখনও কি এই মহাযুদ্ধের কথা মাথায় এনেছেন?
আপনি যখন দৌড় দিয়েছিলেন” তখন ছিলনা কোন চোঁখ হাত পা মাথা,তবুও আপনি জিতেছিলেন।
আপনি যখন দৌড় দিয়েছিলেন”তখন আপনার ছিলনা কোন সার্টিফিকেট ছিলনা মস্তিষ্ক তবুও আপনি জিতেছিলেন
আপনি যখন দৌড় দিয়েছিলেন” তখন আপনার ছিলনা কোন শিক্ষা,কেউ করেনি সাহায্য তবুও আপনি জিতেছিলেন।
আপনি যখন দৌড় দিয়েছিলেন”তখন আপনার একটি গন্তব্য ছিলো এবং সেই গন্তব্যের দিকে উদ্দেশ্য ঠিক রেখে একা একাগ্র চিত্তে দৌড় দিয়েছিলেন এবং শেষ অবধী আপনি জিতে ছিলেন।
– এর পর বহু বাচ্চা মায়ের পেটেই নষ্ট হয়ে যায় । কিন্তু আপনি মারা যান নি ।পুরো ১০ টি মাস পূর্ণ করতে পেরেছেন ।
– বহু বাচ্চা জন্মের সময় মারা যায় কিন্তু আপনি টিকে ছিলেন ।
– বহু বাচ্চা জন্মের প্রথম ৫ বছরেই মারা যায় । আপনি এখনো বেঁচে আছেন ।
– অনেক শিশু অপুষ্টিতে মারা যায় । আপনার কিছুই হয় নি ।
– বড় হওয়ার পথে অনেকেই দুনিয়া থেকে বিদায় নিয়েছে, আপনি এখনো আছেন ।
আর আজ……
আপনি কিছু একটা হলেই ঘাবড়ে যান, নিরাশ হয়ে পড়েন, কিন্তু কেন? কেনো ভাবছেন আপনি হেরে গিয়েছেন ? কেন আপনি আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলেছেন ? এখন আপনার বন্ধু বান্ধব, ভাই বোন, সার্টিফিকেট, সবকিছু আছে। হাত-পা আছে, শিক্ষা আছে, প্ল্যান করার মস্তিষ্ক আছে, সাহায্য করার মানুষ আছে, তবুও আপনি আশা হারিয়ে ফেলেছেন। যখন আপনি জীবনের প্রথম দিনে হার মানেন নি। ৪০ কোটি শুক্রাণুর সাথে মরণপণ যুদ্ধ করে, ক্রমাগত দৌড় দিয়ে কারো সাহায্য ছাড়ায় প্রতিযোগিতায় একাই বিজয়ী হয়েছেন।
কেনো একজন আপনার লাইফ থেকে চলে গেলে,
সেটা মেনে নিতে পারেন না,
কেনো আপনি একটা কিছু হলেই ভেঙ্গে পড়েন
কেনো বলেন আমি আর বাচতে চাইনা
কেনো বলেন আমি হেরে গিছি,আর বিয়ে
করবো কোনো ছেলে কে,যাকে চেয়ে
ছিলাম তাকে পেলাম না,এমন হাজারো কথা
তুলে ধরা সম্ভব, কিন্তু আপনি কেনো হতাশা
হয়ে পড়েন।
সেখানে আজ….
আপনি কেন হারবেন? কেন হার মানবেন? আপনি শুরুতে জিতেছেন,শেষে জিতেছেন, মাঝপঁথেও আপনি জিতবেন। নিজেকে সময় দিন,মনকে প্রশ্ন করুন কি প্রতিভা আছে আপনার। মনের চাওয়া কে সব সময় মূল্য দিন, সব সময় আল্লাকে স্বরণ করুন। আল্লাহ্‌ ও তার রাসূলের পথে চলেন,দেখবেন আপনি জিতে যাবেন,
শুধু বিশ্বাস নিয়ে লং টাইম বিরামহীন লেগে থাকুন- আপনিও জিতবেন।

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন ধন্যবাদ।

Facebook Comments

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here