মায়ের পেটে শিশু লাথি মারে কেন ?

0
104

মা হওয়া সত্যি ভাগ্যের বিষয়। সন্তান আল্লাহর কাছ থেকে পাওয়া বাবা-মায়ের জন্য উপহার বটে। গর্ভাবস্থায় মায়েরা অনেক কষ্ট করেন। কিন্তু এই কষ্টের মাঝে লুকিয়ে থাকে অনেক সুখ। সন্তান যেদিন পৃথিবীতে আসে সেই দিন বাবা-মায়ের ঘর মায়ার আলোয় আলোকিত হয়।
পৃথিবীতে বাবা-মায়ের মৃত্যুর পরে সুখে-দুখে জড়িয়ে থাকে অনেক স্মৃতি।শিশুরা মায়ের পেটে থাকা অবস্থায় মা ও শিশুর মধ্যে একটি সুন্দর সম্পর্ক সৃষ্টি হয়। সন্তান পৃথিবীর আলো দেখার আগে ওই মায়ের থাকে অনেক স্বপ্ন। পেটে সন্তান থাকা অবস্থায় মায়ের সঙ্গে খাওয়া, ঘুম, খেলা কত কিছু না করে। তাই এই সন্তানকে জড়িয়ে মায়েরা থাকে অনেক সুখস্মৃতি। তেমনি একটি সুখস্মৃতি হচ্ছে শিশুরা পেটে থাকা অবস্থায় যখন মায়ের পেটে লাথি মারে।
সাধারণত প্রথম সন্তানের ক্ষেত্রে তা ৯ সপ্তাহ হলেও দ্বিতীয় বা পরবর্তী সন্তানদের ক্ষেত্রে ১৩ থেকে ১৪ সপ্তাহ পর মা শিশুর এই লাথিটা টের পান।
আসুন জেনে নেই গর্ভবস্থায় মায়ের সুখস্মৃতি। শিশু কেন পেটে লাথি মারে।
ভারি খাবার খেলে
মা যদি ভারি খাবার খান এ সময় মায়ের শরীর থেকেই শিশু তার খাদ্যরস গ্রহণ করে। খাবার গ্রহণের সঙ্গে শিশুর শরীরও পুষ্টিলাভ করে ও তার কোষগুলোকে উদ্দীপ্ত করে। তখন হাত-পা ছোড়ে শিশু।
গরম থেকে ঠাণ্ডায় গেলে
মা যদি হঠাৎ গরম থেকে কোনো ঠাণ্ডায় জায়গা পরিবর্তন করেন এর ফলে শিশু পেটে লাথি মারতে পারে। কারণ আবহাওয়ার এই হঠাৎ পরিবর্তন প্রভাব ফলে শিশুর সেন্সরি অর্গানে। আবহাওয়ার পরিবর্তন করলে শিশু হাত-পা ছুড়ে জানান দেয়।
বাম পাশ ফিরে ঘুমালে
মা বাম পাশে কাত হয়ে ঘুমালে শরীরে রক্ত চলাচলের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। ফলে শিশুর শরীরেও অক্সিজেন বেশি পৌঁছায়। তাই সে নড়াচড়া করার শক্তি পায়। তাই হাত পা ছুড়ে।
মা উত্তেজিত হলে
কোনো কারণে মা যদি উত্তেজিত হন বা কোনো আড্ডায় অতিরিক্ত হাসি-কান্নায় অংশ নিলে অথবা ভয় পেলে এমনটি হতে পারে। মায়ের সব কিছু শিশুর ওপরে প্রভাব ফেলে।
ফলে শিশুর সেন্সরি অর্গানে সেই উত্তেজনার রেশ পৌঁছলে সেও উত্তেজিত হয় ও পা ছোড়ে।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here