যে কারণে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলেন সাকিব।

0
114

নির্বাচন থেক সরে দাড়ালেন সাকিব।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। আজ সকালে তার মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করার কথা ছিল। তিনি শেষ পর্যন্ত সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের এই প্রাণভোমরা।
শনিবার রাতে সাকিব বলেন, ‘আমি সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছি, নির্বাচন করব না।’
আগে নির্বাচন করার কথা জানিয়ে এখন কেন সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করলেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি।
এর আগে সাকিব নিজেই বলেছিলেন, তিনি মাগুরা-১ আসনের জন্য তার মনোনয়নপত্র জমা দেবেন।
এ ছাড়া শনিবার দুপুরে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া জানিয়েছিলেন আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচন করার লক্ষ্যে আগামীকাল মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করবেন সাকিব আল হাসান।
বিপ্লব বড়ুয়া জানান, সাকিব আল হাসান রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মনোনয়ন ফরম কিনতে ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে আসবেন বলে জানিয়েছেন। সাকিব আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে ফোন করে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করার বিষয়টি জানিয়েছেন।
সাকিব নির্বাচনে অংশ নেয়ার কথা বললেও কেন শেষ পর্যন্ত সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলেন এ নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ।
সাকিবের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানিয়েছে, সাকিবের খেলা ছেড়ে এখনই রাজনীতিতে আসার সিদ্ধান্তে পক্ষে সায় দেননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সাকিবের দেশকে আরও অনেক কিছু দেয়ার আছে বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী। তাই সাকিবের খেলা ছেড়ে নির্বাচনে আসায় সায় দেননি তিনি।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যায়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, শেখ হাসিনা সাকিবকে খেলা চালিয়ে যেতে বলেছেন।
একটি সূত্র জানায়, নির্বাচনে অংশ নেয়ার আগ্রহের কথা জানাতে এবং প্রধানমন্ত্রীর মত জানতে শনিবার রাতে সাকিব আল হাসান গণভবনে যান। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেন।
প্রধানমন্ত্রী তাকে বলেছেন- সামনে বিশ্বকাপ আছে। তুমি খেলা চালিয়ে যাও। তবে এ বিষয়ে সাকিবের কোনো বক্তব্য এখনও পাওয়া যায়নি।
মাগুরার এ কৃতী সন্তান বাংলাদেশের ক্রিকেটকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডারের ধারাবাহিক পারফরম্যান্সে বাংলাদেশ বহু ম্যাচ জিতেছে।
সাকিব আল হাসানের রাজনীতিতে আসার গুঞ্জন বহুদিনের। কিছু দিন আগে এক সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানিয়েছিলেন- সাকিব ও মাশরাফি আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচন করবেন।
প্রসঙ্গত, জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাও আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচন করতে চাইছেন। তিনি নড়াইল থেকে নির্বাচন করতে রোববার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করতে যাবেন। আর সাকিবের নির্বাচন করার কথা ছিল মাগুরা থেকে।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here